বৃহস্পতিবার, ২০ Jun ২০১৯, ০৫:২৬ অপরাহ্ন

৫৬ হাজার টাকা গেমিং পিসি। বেস্ট রাইজেন গেমিং কম্পিউটার 2019

৫৬ হাজার টাকা গেমিং পিসি। বেস্ট রাইজেন গেমিং কম্পিউটার 2019

বাজেট গেমিং পিসি0 2018
গেমিং পিসি

৫৬ হাজার টাকা গেমিং পিসি তৈরি করার নিয়ম

 

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা আশা করি সবাই ভালো আছেন। আজকে আমরা আপনাদের সাথে আলোচনা করবো কিভাবে ৫৬ হাজার টাকার গেমিং পিসি তৈরি করবেন। এখন আপনি বলতে পারেন এই পিসি কাদের জন্য। বাংলাদেশের গেমার দের কথা মাথায় রেখেই এই গেমিং কম্পিউটার তৈরি করা। আপনি শুধু এই কম্পিউটার গেমিং না তার সাথে ভিডিও এডিটিং করতে পারবে।

 

পাশাপাশি গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজগুলো করতে পারবেন। আশা করি তাহলে বুঝা গেল এই পিসি কাদের জন্য তৈরি করা হচ্ছে। এই কম্পিউটার মূলত বাংলাদেশের গেমার দের কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হয়েছে। তাহলে চলুন শুরু করা যাক আজকের গেমিং পিসি তৈরি করার কাজ।

 

আমরা এই কম্পিউটার তৈরি করতে যতগুলো কম্পোনেন্ট ব্যবহার করেছি আমাদের মতে এই বাজেটে এই কম্পোনেন্ট গুলো সব থেকে ভালো। আপনি চাইলে আপনার নিজের মনের মতন কম্পোনেন্ট গুলো ব্যবহার করতে পারেন। এই কম্পিউটারের যতগুলো কম্পোনেন্ট আমরা ব্যবহার করেছি প্রত্যেকটা কম্পোনেন্ট বাংলাদেশের বাজারে খুব সহজে পাওয়া যায়।

 

আপনি চাইলে আপনার আশে পাশের দোকানে এই কম্পোনেন্ট গুলো ব্যবহার করে এই গেমিং কম্পিউটার তৈরি করতে পারেন। আশে পাশের দোকানে যদি এই সকল কম্পোনেন্ট খুঁজে না পাওয়া যায় তাহলে ইন্টারনেটের সাহায্যে কিনে নিতে পারেন। ইন্টারনেটে কিনা সব থেকে ভালো উপায় নিচে দেওয়া আছে।

 

পোষ্টের জন্য আমাদের কাছে কমেন্ট করেছেন আসিফ , করিম সহ আরো অনেকে। আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। আপনারা চাইলে আমাদের কাছে এভাবে কমেন্ট করতে পারেন। আমরা আপনাদের কমেন্টে উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব। ততক্ষণ পর্যন্ত কষ্ট করে আমাদের ওয়েবসাইটে ও ইউটিউব চ্যানেল ঘুরে দেখুন। তাহলে চলুন শুরু করি

 

এই কম্পিউটারের সকল কম্পোনেন্ট এর বিবরণ নিচে দেওয়া হল

 

মাদারবোর্ড

 

মাদার্বোর্ড হিসেবে আমরা ব্যবহার করছি MSI এর B350M Mortar মাদার্বোর্ডটি। আপনারা চাইলে অবশ্যই এর চেয়ে কম দামে B350 মাদার্বোর্ডটি মার্কেটে পেয়ে যাবেন। আমাদের মতে এই বাজেটের মধ্যে সবচেয়ে ভালো মাদারবোর্ড এটি। আপনি চাইলে আপনার মন মত আপনার কম্পিউটারের যে কোন মাদারবোর্ড ব্যবহার করতে পারেন। 

 

আমরা জাস্ট কালার ও এস্থেটিকের বিবেচনায় এই মাদারবোর্ডটি চয়েজ বেছে নিয়েছি। আর B350 এই মাদারবোর্ডটির সবচেয়ে বড় সুবিধা হল বাজেট চিপসেট হওয়া সত্ত্বেও এটি প্রসেসর ওভারক্লক ও হাই ব্যান্ডউইথ মেমোরি সাপোর্ট করে। এই মাদার্বোর্ডটিতে আরো থাকছে USB 3.1 Type-A, Type-C

আপনারা যদি আমাদের মত AM4 কুলার ব্যাবহার করতে চান ত তাহলে আমরা এই সাজেশন দিব যে কুলার ইন্সটল করার আগে স্ক্র ড্রাইভার দিয়ে ব্র্যাকেট দুটি খুলে নেবেন। বর্তমানে বাংলাদেশে মূল্য ৯০০০ টাকা। আপনারা বর্তমানে যে কোন জায়গা থেকে এটি মাদারবোর্ড কিনতে পারবেন।

 

টাকা গেমিং পিসি

 

প্রসেসর

 

যেহেতু আমরা ৫৬ হাজার টাকা গেমিং পিসি তৈরি করব তাই তাই বাজেট বিবেচনা করে প্রসেসর হিসেবে আমরা ব্যবহার করছি এ এম ডির রাইজেন সিরিজের R3 1300X প্রসেসরটি। এই প্রসেসরটিতে  আমরা পাচ্ছি ৪ কোর ও ৪ থ্রেডএর বেইজ স্পীড হচ্ছে 3.5 Gigahartz যা টার্বো বুস্ট হয়ে সকল কোরে 3.7  Gigahartz পর্যন্ত উঠবে। এছাড়াও এই প্রসেসরটি তে আরো থাকছে 2 MB L2 কেইশ এবং 8 MB L3 কেইশ। RYZEN 3 1300X 4-CORE 3.7 GHZ TURBO 8MB L3 CACHE PACKAGE 65W: AM4 SOCKET WITH COOLING FAN

 

এই প্রসেসরটির টিডিপি হচ্ছে ৬৫ ওয়াট। অর্থাৎ  আপনি যদি ওভারক্লক না করেন তাহলে বুস্ট স্পীডেও আপনারা সীমার মধ্যেই তাপমাত্রা পাবেন। রাইজেনের কোন প্রসেসরেই ইন্টিগ্রেটেড গ্রাফিক্স পাবেন না। আপনারা চাইলে আপনাদের বাজেট অনুযায়ী আরো এক ধাপ এগিয়ে R5 1400 প্রসেসরও নিতে পারেন। তবে বাজেটের সাথে সামঞ্জস্যতা রাখার জন্য আমরা  আমাদের বাজেট অনুযায়ী আমরা 1300X এর সাথেই যাচ্ছি। বর্তমানে বাংলাদেশের বাজারে এই প্রসেসরটি খুব সহজে কিনতে পারবেন এছাড়া আপনি চাইলে ইন্টারনেট এর মাধ্যমে কিনতে পারেন। বর্তমান বাংলাদেশের বাজার দামঃ ১৩,৮০০ টাকা

 

রাইজেন গেমিং কম্পিউটার বাংলাদেশের গেমার

 

সিপিইউ কুলার

 

এ এম ডির সকল রাইজেন সিরিজের প্রসেসরকেই আপনি চাইলে ওভারক্লক করতে পারবেন। আমাদের এই প্রসেসরটিও কিন্তু বেতিক্রম নয়।প্রসেসরটিকে আপনি চাইলে ওভারক্লক করতে পারবেন। কিন্তু আপাতত বাজেট কম থাকার কারণে আমাদের এই প্রসেসরকে ওভারক্লক করার কোন পরিকল্পনা করি নাই। প্রসেসরটি সাথে আপনি আগে থেকে একটি সিপিইউ কুলার পাচ্ছেন।আর বাজেট কম থাকার কারণে আমরা এই সিপিইউ কুলার ব্যবহার করব।

 

বলে রাখা ভালো রাইজেনের 1800X, 1700X ও 1600X ছাড়া সকল প্রসেসরের সাথে আপনি আগে থেকেই স্টক এয়ার কুলার পাবেন। নতুন একটি কুলার ব্যবহার করলে আমাদের কম্পিউটার দাম আপনার বাজেটের বাইরে চলে যেতে পারে। তাই আমরা আলাদা করে আর কোন কুলার ব্যবহার করছি না।

 

মেমোরি

 

বর্তমানে র‍্যামের মার্কেট অনেক গরম থাকার কারণে 8GB বেশি এখানে নেয়াও যাচ্ছে না। আপনি চাইলে ভবিষ্যতে আরও বেশি র‍্যাম ব্যবহার করতে পারবেন। আর বর্তমান প্রক্ষাপটে 8GB র কম র‌্যাম দিয়ে চলা কষ্ট সাধ্য। তাই আমরা চেষ্টা করছি বাজেটের মধ্যে বাজারের সবেচেয়ে কম দামি কিন্তু রিলায়েবল DDR4 র‍্যাম খুজে নিয়ে আসতে। TEAM 14 Vulcan RED U DIMM-D4 2400 CL15-17-17-35 1.2V

 

অবশেষে অনেক চেষ্টার পর খুজতে খুজতে পেয়ে গেলাম TEAM এর Elite+ 8 GB 2400 MHz DDR4 র‍্যাম। আমরা আপনাদের একটা সাজেশন দিব অবশ্যই আপনারা সিঙ্গেল 8 GB স্টিকটিই কিনুন। আপনারা ভবিষ্যতে আর একটি 8GB র র‌্যাম ব্যবহার করতে পারবেন। বর্তমানে বাংলাদেশে বাজার মূল্য ৮৫০০ টাকা। 

 

হার্ডডিস্ক

 

হার্ডডিস্ক হিসেবে আমরা ব্যবহার করেছি সিগেইট বারাকুডা ১ টেরাবাইট হার্ডডিস্ক। এক্ষেত্রে আপনার চলে আপনার মনের মত যে কোন ধরণের হার্ডডিস্ক ব্যাবহার করতে পারেন। তবে আমাদের বাজেটের মধ্যে হওয়ার কারণে নিউএগ ও এমাজনে ৪.৮ স্টার দেখেই এই হার্ডডিস্ক আমরা পছন্দ করেছি। আমরা কিন্তু কোন SSD ব্যবহার করছি না। আপা যদি ভবিষ্যতে SSD ব্যবহার করতে পারবেন। বর্তমানে বাংলাদেশের বাজার মূল্য

 

পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিট (পিএসইউ)

 

আমাদের কম্পিউটারের ফুয়েল ট্যাঙ্ক অর্থাৎ পিএসইউ হিসেবে ব্যবহার করেছি থার্মালটেকের স্মার্ট আর জিবি ৫০০ ওয়াটের ৮০+ সারটিফাইড পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিটকে। আর অল্প কিছু টাকার জন্য কম্পিউটার ঝুঁকিতে চালানোবেকুবের কাজ ছাড়া আর কিছুই না। Thermaltake Smart RGB/0500W/Non Modular/Fan Hub/Single Voltage/Analog/80 Plus/EU/All Sleeved Cables

 

আপনারা চাইলে এতে কম দামে বাজারে ৮০+ সারটিফাইড পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিট পেয়ে যাবেন। যেহেতু নামের মধ্যেই আরজিবি শব্দটি রয়েছে বুঝতেই পারছেন কেন আমরা এই ইউনিট পছন্দ করেছি। তারপর আপনি চাইলে কম ব্যবহার করতে পারেন। বর্তমানে বাংলাদেশের বাজার দামঃ ৪৮০০ টাকা

 

গ্রাফিক্স কার্ড (জিপিইউ

 

বাজেট কম থাকার কারণে আমরা গ্রাফিক্স কার্ড হিসেবে বেছে নিয়েছি জোটাক এর GTX 1050 ti এর মিনি ভার্শন।কিন্তু আমরা আপনাদের সাজেশন দেব বাজারের সবচেয়ে কম দামের জিটিএক্স 1050 ti গ্রাফিক্স কার্ডটি কেনার।

 

এর কারণ হলো আপনি যত দামি গ্রাফিক্স কার্ড কিনুন না কেন পার্থক্য খুবই সামান্য পাবেন। আপনি চাইলে আপনার মনের মতো দামি গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করতে পারেন। বর্তমানে বাংলাদেশের বাজার দামঃ ১৬০০০ টাকা  ZOTAC GEFORCE GTX 1050 Ti 4GB GDDR5,128 bit, 1303-1417/7008, HDCP, DVI-D, HDMI,DP, Lite pack

 

 

কেসিং

 

এবার আসা যাক কম্পিউটারের সকল কম্পোনেন্ট গুলো কে এক জায়গায় রেখে কানেক্ট করার জিনিস যার নাম হল চেসিস।২০১৭ সাল কেসিং হিসেবে ব্যবহার করা হতো টেম্পারড গ্লাস এবং আরজিবি লাইটিঙ।আর যেহেতু আমরা ৫৬ হাজার টাকা গেমিং পিসি তৈরি করব তাই দুটো জিনিস মাথায় রেখে আমরা সবচেয়ে বেস্ট কেচিং খুঁজে বের করার চেষ্টা করি।

 

বিভিন্ন রিভিউ এবং নিউএগে রেটিং দেখার অবশেষে আমরা খুঁজে বের করি এবং কেচিং হিসেবে ব্যবহার করছি থার্মালটেকের ভিউ ২১ কেসিংটি। এই কেসিং এর সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে আপনারা উভয় সাইড প্যানেলে পাবেন টেম্পারড গ্লাস যা অন্যান্য বাজেট টিজি কেসিঙ্গে দেখা যায় না। Thermaltake View 21 TG/Black/Win/SPCC/Tempered Glass*2

 

চাইলে আপনাদের মনের মত করে কেসিং বেছে নিতে পারেন। আমি মনে করি এই দামে মধ্যে সবথেকে ভালো। বর্তমানে বাংলাদেশের বাজার দামঃ ৫,০০০ টাকা

 

আরেকবার দেখে নেয়া যাক কী কী জিনিস আমরা ব্যবহার করছি

 

  • প্রসেসর = RYZEN 3 1300X 4 = দামঃ ১৩,৮০০ টাকা
  • মাদারবোর্ড = MSI B350M MORTAR, = দামঃ ৯০০০ টাকা
  • মেমোরি = TEAM 14 Vulcan RED U DIMM-D4 2400 CL15-17-17-35 1.2V = দামঃ ৮৫০০ টাকা
  • (পিএসইউ) = Thermaltake Smart RGB/0500W/ = দামঃ ৪৮০০ টাকা
  • গ্রাফিক্স কার্ড  = ZOTAC GEFORCE GTX 1050 Ti 4GB GDDR5  = দামঃ ১৬০০০ টাকা
  • কেসিং = Thermaltake View 21 TG = দামঃ ৫,০০০ টাকা

 

বাংলাদেশে গেমারদের কথা চিন্তা করে আমার গেম খেলা অনুভতি আপনাদের সামনে তুলে ধরলাম।আমি এই কম্পিউটারের সব ধরনের গেম খেলে দেখেছি।গেম খেলার অনুভূতি ছিল অসাধারণ আপনি কম্পিউটারের সব ধরনের গেম কোন সমস্যা ছাড়া খেলতে পারবেন।

 

 

প্রায় আমি 3 ঘণ্টার বেশি GTA 5 খেলে দেখেছি। গেম খেলার অনুভূতি ছিল অসাধারণ। আমি যদি এক কথায় বলি। আমি পাড়ার সব সময় 50 থেকে 60 এ বি পি এস এর মধ্যে খেলেছি গেমটি। কোন lag বা সমস্যা ছাড়াই। কয়েকটা জায়গায় মাঝে মাঝে কম এ বি পি এস দেখা গেছে। আপনি যদি এই বাজেটে নতুন একজন gamer হয়ে থাকেন তাহলে আপনার সামনে এই সমস্যাগুলো হবে না বা আপনি সমস্যা গুলো ধরতে পারবেনা সহজে।

 

GTA 40 এ বি পি এস থেকে 60 এ বি পি এস পর্যন্ত খেলতে পারবেন। মাঝে মাঝে 75 এ বি পি এস পর্যন্ত দেখা গেছে। সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনার উঠবে আপনি কিভাবে গেম খেলছেন। আমি যদি এক কথা বলি কোন সমস্যা ছাড়াই আপনি গেমটি খেলতে পারবেন।

 

PUBG গেমটি যদি না খেলি তাহলে মনে হয় গেমিং কম্পিউটার বানানো ব্যর্থ। PUBG তাই আমরা গেমটি প্রায় 6 ঘণ্টার বেশি খেলে দেখেছি। গেম খেলা অনুভূতি ছিল প্রায় ভালো অতটা ভালো না। কারণ আমাদের কাছে হাইস্পিড ইন্টারনেট সংযোগ নেই। এই কারণে আমরা গেমটির মনের মতন করে খেলতে পারিনি। তারপরও যদি বলি গেম খেলে অনুভূতি ছিল অনেক ভালো অসাধারণ। আপনারা এই গেমটি কোন সমস্যা ছাড়াই খেলতে পারবেন।

 

আরো কয়েকটা গেম আমরা এই কম্পিউটারের খেলে দেখেছি সব বলবো তোমায় লেখা সম্ভব না কিছু দিনের মধ্যে ওই গেম গুলোর বিবরণ ও নাম আপনাদের সামনে তুলে ধরা হবে ততক্ষণ কষ্টকে অপেক্ষা করুন।

 

আমরা বাংলাদেশের ইউটিউবার দের কথা মাথায় রেখে এই কম্পিউটারে অনেকগুলো ভিডিও এডিট করে দেখেছি। ভিডিও এডিটিং ছিল অনেক ভালো। কিন্তু rendering করতে অনেক সময় লাগে। কিন্তু এই বাজেটের মধ্যে rendering ছিল অসাধারণ। আপনারা এই কম্পিউটারে প্রায় HD+ ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন কোন সমস্যা ছাড়াই। তার উপরে যদি ভিডিও এডিটিং করেন তাহলে সমস্যা দেখা দিতে পারে। ৫৬ হাজার টাকা গেমিং পিসি

 

আমি এক কথায় যদি বলি এই কম্পিউটার অ্যাপস ডেভেলপার বা কোডিং এর জন্য একবারই না। আপনারা আমাদের 13 হাজার টাকা দামের পিসিটি দেখতে পারেন। বা 25 হাজার টাকা দামের পি সি টি দেখতে পারেন। বাজেটের মধ্যে ভালো গেমিং ফোন

 

আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট করে আমাদের ওয়েব সাইটে আসার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আশা করি আমার এই পোস্টটি আপনার ভালো লেগেছে। আমাদের যদি কোন ভুল হয়ে থাকে তাহলে ছোট ভাই হিসেবে ক্ষমা করে দিবেন। আপনি চাইলে আমাদের পোস্টটি আপনার সকল বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে পারেন।

 

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

 

 

এখানে বাজেট ও চাহিদা অনুযায়ী কম্পিউটার সম্পর্কের সাজেশন দেওয়া হয়

 

 


One response to “৫৬ হাজার টাকা গেমিং পিসি। বেস্ট রাইজেন গেমিং কম্পিউটার 2019”

  1. Mili akhter says:

    হাজার টাকার গেমিং পিসি তৈরি করব। এখন আপনি বলতে পারেন এই পিসি কাদের জন্য। বাংলাদেশের গেমার দের কথা মাথায় রেখেই এই গেমিং পিসি তৈরি করা। আপনি শুধু এই কম্পিউটার গেমিং না তার সাথে ভিডিও এডিটিং করতে পারবে। পাশাপাশি গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2019 Gamestipsbd.com
Design & Developed BY GamesTipsBD.com